একাত্তরের বিচ্চু

মেহেদী সম্রাট
muktijudhho8 picsay

‘৭১ এর বিচ্ছু || মেহেদী সম্রাট

সবাই ভীষণ উদ্বেগ উৎকন্ঠার মধ্যে আছে। বীভৎস হায়েনাগুলো শহর থেকে ইদানিং গ্রামেও ঢুকে পড়ছে। যে কোন মুহূর্তে ওরা হামলে পড়তে পারে পৈশাচিক কায়দায়। এইতো গত পরশুই মন্ডল পাড়াকে পুড়িয়ে শ্বশান করেছে। উপর্যুপরি রেপ করেছে প্রায় ডজন দুয়েক নারীকে। তুলে নিয়ে গেছে অন্তঃসত্ত্বা ছমিরন, মেহেরজান সহ আরো জনা দশেক কুমারি মেয়েকে। সে যে কি বীভৎসতা ! কি যে নারকীয়তা !! তা ভাষায় প্রকাশ করার মতো না। মন্টু, মৃণাল, রঞ্জন, জাদবরা তো বহু আগেই সীমান্ত পেরিয়ে গেছে। সীমান্তের পথে আছে আরো সহস্র সহস্র মানুষ। শরণার্থী শিবিরের দিকে ছুটে চলা মানুষের সারিতে মিশে আছে একদল বিচ্ছু। ওরাও এগিয়ে যাচ্ছে ওপারের দিকে।
কিছু নির্দিষ্ট সময় পরে ফিরে আসে বিচ্ছুর দল। চেহারা পাল্টে যায় ওদের। রশদ পেয়ে গেছে যে..! ওদের চোখ জুড়ে হায়েনা বর অগ্নিস্ফুলিঙ্গ। হৃদয় জুড়ে মুক্ত আবাসভূমির প্রতিচ্ছবি। ওরা ছড়িয়ে পরে পাহাড়-বনে, শহর-গ্রামে। মেতে ওঠে হায়েনা বদের উৎসবে। ক্রমেই কোনঠাসা হয়ে পরে হায়েনার দল ও তাদের দোসররা। অন্যদিকে জীবনকে তুচ্ছ করে বীরদর্পে এগোতে থাকে বিচ্ছুর দল। কখনো কখনো ওরাও ধরা পড়ে কেউ কেউ। মারাও পরে। যারা ধরা পড়ে, তাদের নির্মম যন্ত্রণা দিয়ে খুঁচিয়ে খুঁচিয়ে হত্যা করা হয়। তবুও থামেনা বিচ্ছুর দল। বুকে যে তাদের শত্রু হননের বহ্নিশিখা। হায়েনাদের নাভিশ্বাস উঠে যায়।
দিন যায়, মাস পেরোয়। দুর্বার গতিতে এগোতে থাকে বিচ্ছুর দল। পেছনে পরে থাকে পোড়া গ্রাম। দগ্ধ খুঁটি।
ক্ষতবিক্ষত বাঙালীর রক্তাক্ত লাশ। ফসলের ক্ষেত। ধানের গোলা। মেঠোপথ। শূন্য ভিটা। ধর্ষিতার করুণ
আর্তচিৎকার। প্রিয়তমার ভালোবাসা। সন্তানের মায়া। মায়ের শঙ্কিত মুখচ্ছবি। বাবার অসহায় চাহনি। তবুও এগোতে থাকে ওরা।
আপনার সোনামনির জন্য নাম খুজে পেতে সহয়তা করতে আমরা আছি আপনার পাশে। এখানে আমরা বিভিন্ন ক্যাটাহরীতে কয়েক হাজার নাম ও তার অর্থসহ সংগ্রহ করেছি। ভবিষ্যতে ভিজিটরদের চাহিদার কথা মাথায় রেখে নিত্যনতুন কিছু ফিচার যুক্ত করা হবে। এছাড়া প্রতিটি নামের শুদ্ধ বাংলা ও ইংরেজি বানান সংযুক্ত করার কাজ চলছে। প্রতিটি নামের অর্থ, তাৎপর্য, ইতিহাস, বিক্ষাত ব্যক্তিত্ব, সোসাল মিডিয়ায় জনপ্রিয় ইত্যাদি বিষয় ধারাবাহিক ভাবে যুক্ত করা হবে। মনে রাখবের ‘একটি সুন্দর নাম আপনার সন্তানের সারা জিবনের পরিচয়!!!’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *