মজার কৌতুক

পর্বঃ ০১

সাবধান আর নিচে নামিস না

(১) এক শিক্ষক ক্লাসে ছাত্রদের জিজ্ঞেস করেন – এমন জিনিসের নাম বল তো যা ভিন্ন ভিন্ন নামে পরিচিতি হয় ।

ছাত্র – চুল

শিক্ষক – কিভাবে ?

ছাত্র – মাথায় আমরা বলি চুল , চোখের উপরে থাকলে বলি ভ্রু, ঠোটের উপরে থাকলে বলি গোফ , গালে ও চিবুকে থাকলে বলি দাড়ি । বুকে থাকলে বলি লোম এবং ……

শিক্ষক – সাবধান আর নিচে নামিস না !!!

আজকালকের ছেলেদের কোনো বিশ্বাস নাই!

(২) দুই মেয়ে কথা বলছে-

১ম মেয়ে: আজকালকের ছেলেদের কোনো বিশ্বাস নাই। আমি তো আজকে থেকে ওর মুখও দেখতে চাই না…

২য় মেয়ে: কি হইছে? তুমি কি ওকে অন্য কোনো মেয়ের সাথে দেখে ফেলছ?

১ম মেয়ে: আরে না! ও আমারে আরেক ছেলের সাথে দেখে ফেলছে…। কালকে ও আমারে বলছিল যে, ও নাকি শহরের বাইরে যাবে। তাহলে সে আমাকে কিভাবে দেখল। মিথ্যুক, বদ, ধোঁকাবাজ…

রাতে রোমান্টিক মেসেজ

(৩) প্রেমিকা তার প্রেমিককে রাতে রোমান্টিক মেসেজ পাঠাচ্ছে…

মেয়েঃ ঘুমিয়ে আছো তো স্বপ্ন পাঠাও,

জেগে আছো তো ভাবনা পাঠাও,

যদি কাঁদছো তো চোখের জল পাঠাও ।

ছেলেঃ প্রিয়তমা পায়খানা করতেছি কি পাঠাবো ?

বউয়ের সাথে ঝগড়া

(৪) বল্টু : তুই তোর বউয়ের সাথে ঝগড়া করিস ?

পল্টু : হ্যাঁ, করি। তবে প্রতিবার ঝগড়ার শেষে ও এসে হাঁটু গেড়ে আমার সামনে বসে পড়ে।

বল্টু : বলিস কী ! তারপর ?

পল্টু : তারপর মাথা ঝুঁকিয়ে বলে, ‘খাটের তলা থেকে বেরিয়ে আসো। আর মারব না।’

সবাই বাথরুমে গান গায়

(৫) প্রথম বন্ধু : জানিস, আমাদের বাসার সবাই বাথরুমে গান গায়!

দ্বিতীয় বন্ধু : বলিস কী, স-বা-ই?

প্রথম বন্ধু : সবাই, চাকর-বাকর পর্যন্ত।

দ্বিতীয় বন্ধু : তোরা তাহলে সবাই খুব গানের ভক্ত!

প্রথম বন্ধু : দূ-র-র, তা নয়, আসলে আমাদের বাথরুমের ছিটকিনিটা নষ্ট তো, তাই!

দোকান খোলা

(৬) তন্ময় : তোর ছোট ভাইটা এখন কী করছে ?

রাফি : কিছুদিন আগে একটা কাপড়ের দোকান খুলেছিল, এখন জেলে আছে।

তন্ময় : কেন ?

রাফি : কারণ ও দোকানটা খুলেছিল হাতুড়ি দিয়ে…দরজা ভেঙে !

একচেটিয়া ব্যবসা

(৭) বদু : কী করছিস আজকাল?

কদু : সৎ পথে ব্যবসা করার চেষ্টা করছি।

বদু : তাহলে তো তোর একচেটিয়া ব্যবসা।

কদু : মানে?

বদু : তুই ছাড়া তো ওই লাইনে আর কেউ নাই!

এক মিনিটের জন্য মানুষ

(৮) ভিক্ষুক : মাগো! দুটো ভিক্ষা দিন, মা।

বাড়ির মালিক : বাড়িতে মানুষ নেই, যাও।

ভিক্ষুক : আপনি যদি এক মিনিটের জন্য মানুষ হন, তাহলে খুব ভালো হতো!

কাল এনে দেবো

(৯) পচাদা নিজের দোকানের নতুন কর্মচারি বান্টাকে বলল “আমি বাড়ি থেকে আসছি, কোন খদ্দের ফেরাবি না। যা চাইছে তা দোকানে না থাকলে অন্য কোম্পানির কিছু একটা দিয়ে বলবি আজকের মত চালিয়ে নিতে, কাল এনে দেবো”।

খদ্দের : ভাই টয়লেট পেপার আছে ?

বান্টা : না দাদা, শিরিষ কাগজ আছে, আজকের মত চালিয়ে নিন, কাল এনে দেবো।

তিন মাতালের গাড়ি চড়া

(১০) ৩ জন মাতাল রাতে একটা গাড়িতে উঠল ড্রাইভার বুঝতে পারল যে তারা মাতাল!! ড্রাইভার গাড়ির ইঞ্জিন চালু করল এবং সাথে সাথে বন্ধ করে ফেলল আর তাদেরকে বলল যে তারা নাকি গন্তব্যস্থলে পৌঁছে গিয়েছে।

৩ মাতাল গাড়ি থেকে নামল। তারপর……

১ম মাতালঃ ধন্যবাদ….

২য় মাতালঃ নিন, ১০ টাকা বকশিস দিলাম।

তখন ৩য় মাতাল ড্রাইভারকে দিল একটা থাপ্পর।

ড্রাইভার মনে করল যে লোকটা বোধ হয় মাতাল না, হয়ত সবকিছু বুঝে ফেলেছে। তবুও ড্রাইভার তাকে জিজ্ঞেস করল: থাপ্পর মারলেন কেন??

৩য় মাতালঃ শালা, এত স্পীডে কি কেউ গাড়ি চালায়! আর একটু হলে তো মেরেই ফেলেছিলি।

আপনার সোনামনির জন্য নাম খুজে পেতে সহয়তা করতে আমরা আছি আপনার পাশে। এখানে আমরা বিভিন্ন ক্যাটাহরীতে কয়েক হাজার নাম ও তার অর্থসহ সংগ্রহ করেছি। ভবিষ্যতে ভিজিটরদের চাহিদার কথা মাথায় রেখে নিত্যনতুন কিছু ফিচার যুক্ত করা হবে। এছাড়া প্রতিটি নামের শুদ্ধ বাংলা ও ইংরেজি বানান সংযুক্ত করার কাজ চলছে। প্রতিটি নামের অর্থ, তাৎপর্য, ইতিহাস, বিক্ষাত ব্যক্তিত্ব, সোসাল মিডিয়ায় জনপ্রিয় ইত্যাদি বিষয় ধারাবাহিক ভাবে যুক্ত করা হবে। মনে রাখবের ‘একটি সুন্দর নাম আপনার সন্তানের সারা জিবনের পরিচয়!!!’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *