“দ” “D” দিয়ে হিন্দু  মেয়ে শিশুর নাম”

Hindu Baby Name With “D” (Hindu Girls Name)

দময়ন্তীঃ নলের স্ত্রী,  পরম রূপবতী কন্যা


দয়াঃ করুণা, পর দুঃখ মোচনের প্রবৃত্তি


দয়িতাঃ প্রণয়ী, প্রিয়া, প্রেয়সী, প্রিয়তমা


দামিনীঃ বিদ্যুত, বিজলী, ত্বড়িৎ, ক্ষণপ্রভা, সৌদামিনী, চপলা, চঞ্চলা, দামিনী, অচিরপ্রভা, শম্পা


দিয়ালাঃ শিশুর স্বপ্নের খেলা বিশেষ, নিদ্রিত শিশুর হাসি কান্না।


দিয়ালীঃ দীপাবলি বা দেওয়ালি হল পাঁচ দিন-ব্যাপী হিন্দু ধর্মীয় উৎসব। আশ্বিন মাসের কৃষ্ণা ত্রয়োদশীর দিন  ধনত্রয়োদশী অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে দীপাবলি উৎসবের সূচনা হয়। কার্তিক মাসের শুক্লা দ্বিতীয়া তিথিতে ভাইফোঁটা অনুষ্ঠানের মাধ্যমে এই উৎসব শেষ হয়।

(দেওয়ালির কথ্যরূপ, দীপাবলি)


দীপাঃ বাতি, আলো


দীপান্বিতাঃ (দেওয়ালির রাত্রি, বহুদীপে সজ্জিতা)

কার্তিক মাসের অমাবস্যা, যেদিন হিন্দু ধর্ম মতে আলোকসজ্জা উৎসব হিসাবে পালন করা হয়। 


দীপালিঃ দীপাবলী, দেওয়ালি, প্রদীপের  সজ্জা, আলোর উৎসব


দীপিকাঃ ছোট দীপ, জ্যোৎস্না, প্রকাশিকা 


দীপ্তিঃ জ্যোতিঃ, প্রভা, আলোক, তেজ।


দৃশিঃ শাস্ত্র, চক্ষু, চোখ


দৃষ্টিঃ অবলোকন, দর্শন, চক্ষু, দেখবার শক্তি , লক্ষ্য, নজর 


দেবকিঃ কৃষ্ণের মাতা, মথুরার রাজা কংশের বোন


দেহলীঃ  দাওয়া, গৃহের সম্মুখ ভাগ, বারান্দা।


দোয়েলঃ এক রকমের পাখী


দোলনচাঁপাঃ ফুলবিশেষ, এটি কিউবার জাতীয় ফুল। 


দোলিকাঃ  চতুর্দোল, শিবিকাবিশেষ।

অক্ষর দিয়ে নাম খুজুন

আরও কিছু প্রয়োজনীয় পোষ্টঃ

শিশুর নামকরন লক্ষনীয়ঃ 

একটি সুন্দর নাম আপনার সন্তানের সারা জিবনের পরিচয়। তাই একটি শিশুর জন্য একটি সুন্দর ও অর্থবহ নাম নির্বাচন করা অত্যন্ত জরুরী। হিন্দু শিশুদের নাম নির্বাচনের ক্ষেত্রে কিছু বিষয় খেয়াল রাখা অতিব জরুরী। যেমনঃ নামের আদ্যক্ষর, নামের হিন্দু ধর্মীয় অর্থ ও ব্যাখ্যা, বর্তমান সামাজিক প্রেক্ষাপট, ইতিহাসে একই নামে বিক্ষাত ও কুক্ষাত ব্যক্তি বা চরিত্র, নামের বাংলা ও ইংরেজি বানান, শ্রুতি মধুরতা ইত্যাদি। এছাড়াও অনেকেই সন্তানের নাম রাখার ক্ষেত্রে পিতা-মাতার নামের সাথে মিল, পিতা-মাতার নামের আদ্যক্ষরের মিল, বিখ্যাত মানুষের নামের সাথে মিল, আধুনিক নাম নির্বাচন ইত্যাদি বিষয়ে গুরুত্ব দিয়ে থাকেন। অনেকেই সন্তানের নাম রাখার ক্ষেত্রে অপেক্ষাকৃত ছোট ও আধুনিক নাম খুজে থাকেন। 
এখানে মুল কথা হচ্ছে- যে দিক বিবেচনা করে আপনার সন্তানের নাম নির্বাচন করেননা কেন, সকল ক্ষেত্রে উপরে আলোচিত বিষয় গুলো গুরুত্ব দেওয়া উচিত। আপনার খেয়াল-খুশি বা অপরিপক্ক সিদ্ধান্তের কারনে আপনার সন্তান সামাজিক জীবন, শিক্ষা ক্ষেত্র, কর্ম ক্ষেত্রে পদে পদে বিড়ম্বনার শিকার হতে পারে। নামের বানান বা উচ্চারন যদি সরল ও স্বাভাবিক না হয় তবে সৃষ্টি হতে পারে এ ধরনের জটিলতার। আবার, কিছু নাম আছে যা যথেষ্ট অর্থবহ তবুও সমাজে এই শব্দগুলো ব্যাঙ্গাত্ত্বক বা হীন অর্থে ব্যবহৃত হয়ে থাকে।  এ ধরনের নাম পরিহার করাই শ্রেয়। শুভ হোক আপনার সন্তানের ভবিষ্যৎ।
আপনার সোনামনির জন্য নাম খুজে পেতে সহয়তা করতে আমরা আছি আপনার পাশে। এখানে আমরা বিভিন্ন ক্যাটাহরীতে কয়েক হাজার নাম ও তার অর্থসহ সংগ্রহ করেছি। ভবিষ্যতে ভিজিটরদের চাহিদার কথা মাথায় রেখে নিত্যনতুন কিছু ফিচার যুক্ত করা হবে। এছাড়া প্রতিটি নামের শুদ্ধ বাংলা ও ইংরেজি বানান সংযুক্ত করার কাজ চলছে। প্রতিটি নামের অর্থ, তাৎপর্য, ইতিহাস, বিক্ষাত ব্যক্তিত্ব, সোসাল মিডিয়ায় জনপ্রিয় ইত্যাদি বিষয় ধারাবাহিক ভাবে যুক্ত করা হবে। মনে রাখবের ‘একটি সুন্দর নাম আপনার সন্তানের সারা জিবনের পরিচয়!!!’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *