‘ব’ ‘B’ দিয়ে হিন্দু ছেলে শিশুর নাম”

Hindu Baby Name With “B” (Hindu Boys Name)

বলাকঃ এক ব্যাধ যে স্বর্গে গিয়েছিল

বিনায়কঃ বিশিষ্ট নায়ক


বিবোধঃ বিশিষ্টবোধ, জ্ঞান


বিভবঃ প্রসার


বিভলঃ মত্ত, আত্মহারা


বিভাবঃ পরিচয়, বিশিষ্টভাব


বিভাসঃ রাগবিশেষ


বিশোকঃ ভীমের সারথি


বিশ্বাবসুঃ গন্ধর্বদের রাজা


বীরণঃ প্রজাপতিবিশেষ


বুদ্ধপ্রিয়ঃ বুদ্ধের প্রিয় ব্যক্তি


বুধিলঃ জ্ঞানীব্যক্তি


বাসুঃ সাফল্যপূর্ণ


বাদলঃ বৃষ্টি


বদরিনাথঃ তীর্থযাত্রা এর দেবতা, বদ্রীনাথ মন্দির


বলরামঃ শ্রী কৃষ্ণ ভাই, শ্রীহরি বিষ্ণুর আদিশেষ নাগের অবতার


বলদেবঃ শক্তিশালী, শ্রীকৃষ্ণের জ্যেষ্ঠ ভ্রাতা


বালীঃ বলশালী যোদ্ধা, বানররাজ বালী। 


বলরাজঃ শক্তিশালী রাজা,  রাজা, পরাক্রম, ক্ষমতাশালী


বসন্তঃ বসন্ত কাল, ঋতু বিশেষ, ঋতুরাজ, শীতের পরবর্তী ঋতু, মধুমাস, বসন্ত বা মসূরিকা রোগ; সঙ্গীতের রাগবিশেষ।


বিমলঃ পরিষ্কার যিনি, স্বচ্ছ, নির্মল, পবিত্র।


ব্রজমোহনঃ শ্রী কৃষ্ণ, ব্রজকিশোর, ব্রজমোহন, শ্রীকৃষ্ণ।


বুধঃ একটি গ্রহ


বিমানঃ পালনকর্তা বিষ্ণু, আকাশগামী যানবিশেষ, ব্যোমযান, আকাশ। 


বংশীঃ বাশিঁ, কৃষ্ণের বাশিঁ, বেণু, মুরলী।


বরুনঃ জলাধিপ, প্রচেতা, সমুদ্রের অধিপতি দেবতা


বশিষ্টঃ প্রতুল, ঋষিবিশেষ, ইক্ষ্বাকু বংশের কুলগুরু, ব্রহ্মার মানসপুত্র


বসুদেবঃ শ্রীকৃষ্ণ জনক


বায়ুঃ বাতাসে ঈশ্বর এবং বায়ু


বিধুরঃ জ্ঞানময়, কাতর, বিমূঢ়, ভারাক্রান্ত- বেদনা-বিধুর,  ক্লিষ্ট, ভীত


বিজয়ঃ জয়ী, সম্পূর্ণরূপে জয়, অর্জুনের এক নাম, পূর্ণ অধিকার, প্রাধান্য বিস্তার


বিকাশঃ অগ্রগতি, প্রকাশ, পণিতি লাভ, প্রসার, শ্রীবৃদ্ধি, উন্মেষ প্রস্ফুটিত অবস্থা


বিক্রমঃ পরাক্রম, বীরত্ব, শক্তি ও সাহস, তেজ


বিলাসঃ আমোদ, সৌখিনতা, কেলি, লীলাউদ্যান, সুখভোগ


বিপিনঃ বন, অরণ্য


বিরাজঃ জাঁকজমক


বিপুলঃ বৃহৎ, ব্যাপক, অনেক


বিরেন্দ্রঃ সাহসী ব্যক্তি


বিষ্ণুঃ ভগবান বিষ্ণু, পালনকর্তা


বিবেকঃ ন্যায়-অন্যায় হিতাহিত ধর্মাধর্ম বিচারে মানুষের অন্তর্নিহিত শক্তি; বিবেচনা, বৈরাগ্য, বিচার।


যদুঃ যাদবদিগের আদি পুরুষ


যাদবঃ কৃষ্ণ

 

অক্ষর দিয়ে নাম খুজুন

 

আরও কিছু প্রয়োজনীয় পোষ্টঃ

 

শিশুর নামকরন লক্ষনীয়ঃ 

 
একটি সুন্দর নাম আপনার সন্তানের সারা জিবনের পরিচয়। তাই একটি শিশুর জন্য একটি সুন্দর ও অর্থবহ নাম নির্বাচন করা অত্যন্ত জরুরী। হিন্দু শিশুদের নাম নির্বাচনের ক্ষেত্রে কিছু বিষয় খেয়াল রাখা অতিব জরুরী। যেমনঃ নামের আদ্যক্ষর, নামের হিন্দু ধর্মীয় অর্থ ও ব্যাখ্যা, বর্তমান সামাজিক প্রেক্ষাপট, ইতিহাসে একই নামে বিক্ষাত ও কুক্ষাত ব্যক্তি বা চরিত্র, নামের বাংলা ও ইংরেজি বানান, শ্রুতি মধুরতা ইত্যাদি। এছাড়াও অনেকেই সন্তানের নাম রাখার ক্ষেত্রে পিতা-মাতার নামের সাথে মিল, পিতা-মাতার নামের আদ্যক্ষরের মিল, বিখ্যাত মানুষের নামের সাথে মিল, আধুনিক নাম নির্বাচন ইত্যাদি বিষয়ে গুরুত্ব দিয়ে থাকেন। অনেকেই সন্তানের নাম রাখার ক্ষেত্রে অপেক্ষাকৃত ছোট ও আধুনিক নাম খুজে থাকেন। 
 
এখানে মুল কথা হচ্ছে- যে দিক বিবেচনা করে আপনার সন্তানের নাম নির্বাচন করেননা কেন, সকল ক্ষেত্রে উপরে আলোচিত বিষয় গুলো গুরুত্ব দেওয়া উচিত। আপনার খেয়াল-খুশি বা অপরিপক্ক সিদ্ধান্তের কারনে আপনার সন্তান সামাজিক জীবন, শিক্ষা ক্ষেত্র, কর্ম ক্ষেত্রে পদে পদে বিড়ম্বনার শিকার হতে পারে। নামের বানান বা উচ্চারন যদি সরল ও স্বাভাবিক না হয় তবে সৃষ্টি হতে পারে এ ধরনের জটিলতার। আবার, কিছু নাম আছে যা যথেষ্ট অর্থবহ তবুও সমাজে এই শব্দগুলো ব্যাঙ্গাত্ত্বক বা হীন অর্থে ব্যবহৃত হয়ে থাকে।  এ ধরনের নাম পরিহার করাই শ্রেয়। শুভ হোক আপনার সন্তানের ভবিষ্যৎ।
আপনার সোনামনির জন্য নাম খুজে পেতে সহয়তা করতে আমরা আছি আপনার পাশে। এখানে আমরা বিভিন্ন ক্যাটাহরীতে কয়েক হাজার নাম ও তার অর্থসহ সংগ্রহ করেছি। ভবিষ্যতে ভিজিটরদের চাহিদার কথা মাথায় রেখে নিত্যনতুন কিছু ফিচার যুক্ত করা হবে। এছাড়া প্রতিটি নামের শুদ্ধ বাংলা ও ইংরেজি বানান সংযুক্ত করার কাজ চলছে। প্রতিটি নামের অর্থ, তাৎপর্য, ইতিহাস, বিক্ষাত ব্যক্তিত্ব, সোসাল মিডিয়ায় জনপ্রিয় ইত্যাদি বিষয় ধারাবাহিক ভাবে যুক্ত করা হবে। মনে রাখবের ‘একটি সুন্দর নাম আপনার সন্তানের সারা জিবনের পরিচয়!!!’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *