‘ম’ ‘M’ দিয়ে হিন্দু ছেলে শিশুর নাম”

Hindu Baby Name With “M” (Hindu Boys Name)


মনস্বীঃ মহান্‌ মনাঃ প্রশস্তচিত্ত, স্থিরচিত্ত।

মেয়ে নামঃ মনস্বিনী, মনস্বিতা।


মরুত্তঃ ইক্ষ্বাকু বংশের রাজা।

যিনি ইন্দ্র এবং বৃহস্পতির আপত্তি অগ্রাহ্য করে সংবর্ত এঁর যজ্ঞ পরিচালনা করেছিলেন। মরুত্তের ওপর সন্তুষ্ট হয়ে ভগবান শূলপাণি হিমাচলের সুবর্ণময় এক পর্বত দান করেছিলেন। মরুত্তের মৃত্যুর পর এই সুবর্ণরাশি মহাদেবের অনুচর ও যক্ষরা রক্ষা করতেন। যুধিষ্ঠির মহাদেব ও যক্ষদের সন্তুষ্ট করে ভূমি খনন করে এই ধন উদ্ধার করেন ও সেই অর্থ দিয়ে অশ্বমেধ যজ্ঞ পালন করেন।


মেঘদত্তঃ মেঘের দান

একটি নাম কতটা অর্থবহ এটি যেমন গুরুত্বপূর্ণ তেমনি এটাও সমান ভাবে গুরুত্বপূর্ণ যে নামটি কতটা শ্রুতি মধুর। আমার মনে হয় মেঘদত্ত নামটি যথেষ্ট সুন্দর একটি নাম।


মৈত্রেয়ঃ বন্ধু, মিত্র-সম্বন্ধীয়, বুদ্ধদেব, মুনিবিশেষ। মেয়ে নামঃ মৈত্রেয়ী।


মদনঃ কন্দর্প, কামদেব, কাম ও প্রেমের দেবতা, অনঙ্গ, অতনু, মনসিজ, মন্মথ, পুষ্পধন্বা, মনোভব, পঞ্চশর; রতিপতি, স্মর, মরকেতন। মদন মোহন- শ্রীকৃষ্ণ

যদিও নামটি কিছুটা সেকেলে, তবুও নামের অর্থের বিচারে আমরা নামটিকে তালিকায় রেখেছি।


মনোতঃ মনের মতো

যদি আপনার সন্তানের জন্য একটি ইউনিক নাম রাখতে চান তবে এটি হতে পারে সেরা।


মাধবঃ ভগবান, শ্রী কৃষ্ণ।

হিন্দু ধর্মীয় দৃষ্টকোণ থেকে এই নামটি খুবই অর্থবহ আর সুন্দর একটি নাম।


মধুসূদনঃ নারায়ণ, হরি।

নামটি ধর্মীয় দিক থেকে যেমন গুরুত্বপূর্ণ তেমনি বাংলা সাহিত্যের ইতিহাসে এই নামটি একটি উজ্জ্বল নক্ষত্রের মতো জ্বলছে।


মধুকরঃ মৌমাছি, ভ্রমর

আনকমন নাম হিসাবে এই নামটি বেশ সুন্দর।


মহন্তঃ মঠস্বামী; দেব মন্দিরের অধ্যক্ষ সন্ন্যাসী, মহান্ত, মঠাধ্যক্ষ


মহাবীরঃ জৈন গুরু, অতিশয় বীর; বিক্রমশালী।হনুমান, জৈন তীর্থঙ্কর বিশেষ।

মহাবীর ছিলেন জৈন ধর্ম প্রচারক। মহাবীরের ছেলেবেলার নাম ছিল ‘বর্ধমান’ (‘যিনি বৃদ্ধি পান, বৃদ্ধিশীল’)। মহাবীরের জন্মের সময় তাঁর রাজ্যের দ্রুত সমৃদ্ধি ঘটছিল বলে তাঁর এই নামকরণ করা হয়। মহাবীর ছেলেবেলায় একাধিকবার বীরত্বের পরিচয় দিয়েছিলেন। তাই তাঁকে ‘মহাবীর’ নামে অভিহিত করা হত। মহাবীরকে ‘জিন’ (‘আসক্তি, অহংকার, লোভ প্রভৃতি অন্তঃপ্রবৃত্তিগুলি যিনি জয় করেছেন’) নামেও চিহ্নিত করা হয়। পরবর্তীকালে ‘জিন’ উপাধিটি ‘তীর্থঙ্কর’ নামের সমার্থক শব্দে পরিণত হয়।


মহেশঃ শিব, মহাদেব।

ভগবান শিবের নামে এই নামটি সুন্দর একটি নাম।


মানবঃ মানুষ, মনুষ্য। আদি পিতা মনুর বংশধর

অর্থের বিচারে “মানব” নামটি খুবই সুন্দর একটি নাম।


মঙ্গলঃ কল্যাণ, গ্রহবিশেষ, কুজগ্রহ; সপ্তাহের তৃতীয় দিবস, লৌকিক কাব্য-বিশেষ (মনসামঙ্গল ইত্যাদি)


মানিকঃ এক রকম বহুমূল্য রত্ন, চুণি, মাণিক্য, স্নেহের পাত্রকে আদরের সম্বোধনসূচক শব্দ।

প্রতিটি সন্তানই তার বাবা মায়ের কাছে সাত রাজার ধন। স্নেহের বহিঃপ্রকাশ ঘটাতে মানিক নামের প্রতিদন্ধী কিই বা হতে পারে?


মনোজিতঃ মনের আলো


মনোহরঃ অতি সুন্দর, রমণীয়; চিত্তাকর্ষক


মনোরঞ্জনঃ মনের প্রফুল্লতাকরণ, মনস্তুষ্টি, মনের আনন্দদায়ক, চিত্তের সন্তোষ বিধায়ক

আপনার নবাগত সন্তান এই পৃথিবীর মানুষের দুঃখ কষ্ট ভুলিয়ে তাদের চিত্তে আনন্দের সঞ্ছার করবে এমন প্রার্থনা থেকে এই মহান নামটি আপনার সন্তানকে উপহার দিতেই পারেন।


মনোরথঃ ইচ্ছা, মনস্কামনা, বাসনা, সঙ্কল্প, অভিলাষ।


মন্থনঃ আলোড়ন, মওন, দলন; মথিতকরণ; বিনষ্টকরণ; মওয়া; মন্থনদন্ড; মউনি।

সমুদ্র-মন্থনঃ সমুদ্রের আলোড়ন; অমৃত আহরণের জন্য দেবতা ও অসুর কর্তৃক মন্দার পর্বতকে মন্থন দন্ড ও শেষনাগকে রজ্জু করে সমুদ্র আলোড়ন।


মিহিরঃ সূর্য, তপন।

বিখ্যাত ব্যক্তিত্বঃ বরাহমিহির প্রাচীন ভারতের গুপ্ত সাম্রাজ্যের সমসাময়িক (আনুমানিক ৫০৫ – ৫৮৭) একজন বিখ্যাত দার্শনিক, জ্যোতির্বিজ্ঞানী, গণিতবিদ ও কবি।


মোহনঃ সম্মোহন, মুগ্ধকরণ, কামদেবের সম্মোহক বাণবিশেষ। মুগ্ধকারী, চিত্তাকর্ষক, মনোহর।

বিখ্যাত ব্যক্তিত্বঃ মদন মোহন তর্কালঙ্কার


মৃদুলঃ কোমল, নরম।


মৃনালঃ পদ্মের নাল বা ডাঁটা; পদ্মের সাদা কোমল পত্রাঙ্কুর বা ভক্ষণীয় কন্দ।


মুকুলঃ ফুলের কলি


মুরালীঃ বংশী

অক্ষর দিয়ে নাম খুজুন

আরও কিছু প্রয়োজনীয় পোষ্টঃ

শিশুর নামকরন লক্ষনীয়ঃ

একটি সুন্দর নাম আপনার সন্তানের সারা জিবনের পরিচয়। তাই একটি শিশুর জন্য একটি সুন্দর ও অর্থবহ নাম নির্বাচন করা অত্যন্ত জরুরী। হিন্দু শিশুদের নাম নির্বাচনের ক্ষেত্রে কিছু বিষয় খেয়াল রাখা অতিব জরুরী। যেমনঃ নামের আদ্যক্ষর, নামের হিন্দু ধর্মীয় অর্থ ও ব্যাখ্যা, বর্তমান সামাজিক প্রেক্ষাপট, ইতিহাসে একই নামে বিক্ষাত ও কুক্ষাত ব্যক্তি বা চরিত্র, নামের বাংলা ও ইংরেজি বানান, শ্রুতি মধুরতা ইত্যাদি। এছাড়াও অনেকেই সন্তানের নাম রাখার ক্ষেত্রে পিতা-মাতার নামের সাথে মিল, পিতা-মাতার নামের আদ্যক্ষরের মিল, বিখ্যাত মানুষের নামের সাথে মিল, আধুনিক নাম নির্বাচন ইত্যাদি বিষয়ে গুরুত্ব দিয়ে থাকেন। অনেকেই সন্তানের নাম রাখার ক্ষেত্রে অপেক্ষাকৃত ছোট ও আধুনিক নাম খুজে থাকেন।
এখানে মুল কথা হচ্ছে- যে দিক বিবেচনা করে আপনার সন্তানের নাম নির্বাচন করেননা কেন, সকল ক্ষেত্রে উপরে আলোচিত বিষয় গুলো গুরুত্ব দেওয়া উচিত। আপনার খেয়াল-খুশি বা অপরিপক্ক সিদ্ধান্তের কারনে আপনার সন্তান সামাজিক জীবন, শিক্ষা ক্ষেত্র, কর্ম ক্ষেত্রে পদে পদে বিড়ম্বনার শিকার হতে পারে। নামের বানান বা উচ্চারন যদি সরল ও স্বাভাবিক না হয় তবে সৃষ্টি হতে পারে এ ধরনের জটিলতার। আবার, কিছু নাম আছে যা যথেষ্ট অর্থবহ তবুও সমাজে এই শব্দগুলো ব্যাঙ্গাত্ত্বক বা হীন অর্থে ব্যবহৃত হয়ে থাকে।  এ ধরনের নাম পরিহার করাই শ্রেয়। শুভ হোক আপনার সন্তানের ভবিষ্যৎ।
আপনার সোনামনির জন্য নাম খুজে পেতে সহয়তা করতে আমরা আছি আপনার পাশে। এখানে আমরা বিভিন্ন ক্যাটাহরীতে কয়েক হাজার নাম ও তার অর্থসহ সংগ্রহ করেছি। ভবিষ্যতে ভিজিটরদের চাহিদার কথা মাথায় রেখে নিত্যনতুন কিছু ফিচার যুক্ত করা হবে। এছাড়া প্রতিটি নামের শুদ্ধ বাংলা ও ইংরেজি বানান সংযুক্ত করার কাজ চলছে। প্রতিটি নামের অর্থ, তাৎপর্য, ইতিহাস, বিক্ষাত ব্যক্তিত্ব, সোসাল মিডিয়ায় জনপ্রিয় ইত্যাদি বিষয় ধারাবাহিক ভাবে যুক্ত করা হবে। মনে রাখবের ‘একটি সুন্দর নাম আপনার সন্তানের সারা জিবনের পরিচয়!!!’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *